Categories
Uncategorized

আমি খোঁচিত কলমের দগ্ধ পাতা

আমি অন্তঃহীন হৃদয়হীন এক কাগজের পাতা। তোমাদের অর্থের কেনা দ্রব্য হয়ে তোমাদের ঘরে যাই। আমার বুকে জুলুম আর নিঃপেষীত অত্যাচারে তোমরা হয়ে ওঠো জ্ঞানী-গুণী আর মহা পন্ডিত। মান-সম্মান প্রতিপত্তি ভদ্র সমাজ। আমার বুকে তোমাদের আত্মার গ্লানি মাখিয়ে সৃষ্টি কর ইতিহাস সাহিত্যিকদের কবিতা, গল্প আর উপন্যাস। আমাকে দিয়েই প্রকাশ, আমি ধরে রাখি যুগের পর যুগ। অমনই তোমরা নাম কিনো। আমি তো প্রেমিক মনের বার্তা পৌছায়। রাজনৈতিকদের এক একটি শ্লোগান। ভোট প্রার্থীদের ব্যালেট পেপার। তোমাদের নিষ্ঠুর কলমের নিরব আঁচড়ে ক্ষত-বিক্ষত আমার বুক। ঐ হিংস্র কলমের আঘাতে আমার রক্ত ঝড়ে আমার। প্রেমের অভয় নিঃপেষীত চাপে নিত্য দিনের শিকার আমি। তোমরাও তা জান। তাই মোলাটের প্রলেপ দিয়ে ঢেকে রাখতে চাও তোমাদের সর্বোচ্চ অত্যাচারের কথা। মুছে ফেলতে চাও তোমাদের দেওয়া ক্ষত-বিক্ষত চিহ্নকে।
তারপর ছুড়ে ফেলে দাও ডাসবিনে দিকে। অর্থের লোভে বিক্রি করে দাও ফেরীওয়ালাদের কিংবা দোকানদারের কাছে। তখনই আমার নির্যাতন শেষ নয়। দোকান থেকে আমাকে দিয়েই পুটলি বেধে দ্রব্যাদি কিনো তোমরা তোমাদের প্রয়োজন শেষে আবারও ছুড়ে দাও নর্দ্দমায় কিংবা রাস্তায়। তারপর ফিরে তাকাওনা পিছনের দিকে। তোমাদের পদধূলিতে দগ্ধ আমার বুক আর শ্রীহীন চেহারা।
এই কি আমার প্রতিছবি। এরই জন্য কি আমি আমার বুক উজার করে বিলায় দিয়েছিলাম। তোমরা তোমাদের হৃদয়ের মরিচা পড়া ইতিহাস লেখ। কিন্তু আমাকে নিয়ে কি লিখেছিলে এমন একটি কবিতা আর গল্প। যুগ ধরে বিদ্রোহ করছো তোমরা কিন্তু আমাকে নিয়ে কি এমনি ভাবে বিদ্রোহ করেছিলে যে আমি শুধু কলমের খোচাঁতে জরজরিত হয়ে ডাসবিনে তিলে তিলে পচে মরতে চাই না। আমিও চাই সুন্দও ঠাই। আমাকে পৃথিবীর সবচাইতে সম্মানিত ও উচ্চ স্থানে সাজিয়ে রাখা হোক। তোমরা সবই পার। সবই জান। জেনে শুনে আমাকে তোমাদের প্রয়োজন শেষে ঐ নিষ্ঠুর নির্যাতনের শেষে অবহেলা করে ফেলে দেবে। এই দুঃখে আমার একটু কাঁদবারও জোঁ নেই। তবে আমি জানি, পৃথিবীর কাছে আমার ‘এ’ ইতিকথা চিরকাল চাপা থাকবেনা। একদিন বজ্র কষ্ঠে রুখে দাঁড়াবে তোমরা অত্যাচারী তোমরা নির্যাতনকারী। তোমরা প্রতিদান দিতে জাননা। কেবল কষে কষে আদায় করতে পার তোমাদের প্রয়োজন। এখনও সংযত হও। নইলে পাপের অতলে বিলিন হয়ে যাবে কোন একদিন।

Please follow and like us: